কন্টেন্ট রেটিং এর আদ্যপান্ত

কন্টেন্ট রেটিং এর আদ্যপান্ত

 

  • ঘটনা ১ – আপনি একটি হলিউড সিনেমা দেখতে বসেছেন। সিনেমার কাহিনী শুরু হওয়ার আগে কালো ব্যাকগ্রাউন্ডে একটি ছোটো আইকন দেখতে পেলেন যাতে লেখা আছে PG 13।
  • ঘটনা ২ – আপনি একটি গেম খেলা শুরু করবেন বলে ভাবছেন। তো গেমটির ডিস্ক্রিপশন চেক করতে গিয়ে দেখলেন সেখানে আবারও একটি ছোটো আইকন আছে যাতে লেখা T ESRB।
  • ঘটনা ৩ – আপনি এবার ভাবলেন যে একটি সিরিজ দেখবেন। সিরিজের ডিস্ক্রিপশন চেক করতে গিয়ে সেখানেও আপনি এরকম আরেকটি আইকন পেলেন আর তাতে লেখা TV G।

উপরের ঘটনা গুলোতে যে আইকন গুলোর কথা লেখা আছে সেগুলো হচ্ছে কন্টেন্ট গুলোর রেটিং। অর্থাৎ কন্টেন্ট গুলো কোনো বয়সের মানুষদের জন্য দেখার উপযোগী তা নির্দেশ করে।

প্রথম ঘটনাটিতে আমরা সিনেমা দেখার ক্ষেত্রটি তুলে ধরেছি। সাধারণত হলিউড মুভি গুলোর এই বয়সভিত্তিক রেটিং করে থাকে Motion Picture Association (MPA)। এটি প্রথম চালু হয় ১৯৬৮ সনে। উল্লেখ্য, যেকোনো সিনেমা এই রেটিং ছাড়াই মুক্তি পেতে পারে কিন্তু অভিভাবক দের সুবিধার্থেই এই রেটিং গুলো করা হয়। অর্থাৎ অভিভাবক এই রেটিং দেখে যাতে বুঝতে পারে যে কন্টেন্টটি তার বাচ্চার জন্য উপযোগী কিনা।

মুভি রেটিং এর সাইনগুলো ; ছবিসূত্রঃ Google

এবার আসি রেটিং সিস্টেমের কথায়। বয়সভিত্তিকভাবে যেকোনো মুভিকে ৫ ভাবে রেটিং করা হয়। G, PG, PG-13, R এবং NC-17। নিম্নে একটি ছকের মাধ্যমে দেখিয়ে দিচ্ছি কোন রেটিং দিয়ে কি বুঝানো হয়।

চিহ্নবর্ণনা
G দ্বারা এখানে বোঝানো হয়েছে General Audience. অর্থাৎ সকল বয়সের দর্শকের জন্য কন্টেন্ট টি উপযুক্ত।
PG দ্বারা এখানে বোঝানো হয়েছে Parental Guidance। অর্থাৎ কন্টেন্টের কিছু কিছু ক্ষেত্র বাচ্চাদের জন্য উপযোগী নাও হতে পারে।
এই চিহ্ন দিয়ে বোঝানো হয় যে কন্টেন্টটি ১৩ বছরের কম বয়সী ছেলেমেয়েদের জন্য অনুপযোগী।
এসব কন্টেন্টগুলোতে কিছু এডাল্ট ম্যাটেরিয়াল থাকে। সন্তানের জন্য উপযোগী হবে কিনা তা অভিভাবকদের মতামতের উপর নির্ভর করে।
এ জাতীয় কন্টেন্টগুলো সম্পূর্নরুপে এডাল্টদের জন্য তৈরী। ১৭ বা তারচেয়ে কম বছর বয়সীদের জন্য এধরণের কন্টেন্ট উপযোগী নয়

এবার আসি ঘটনা ২ এ । ভিডিও গেম।

ভিডিও গেমসে ব্যবহৃত রেটিং সাইনগুলো ; ছবিসূত্রঃ Internetmatters.org

স্পোর্টস গেম গুলো বাদে সাধারণত স্টোরি বেজড ভিডিও গুলো অর্থাৎ যেগুলো একটি নির্দিষ্ট কাহিণীর উপর নির্ভর করে গেমটি খেলতে হয় সেগুলোতে অনেক সময়ই এডাল্ট সিন দেখা যায়। এক্ষেত্রেও অভিভাবকেরা যেন তার সন্তানের জন্য উপযোগী গেম নির্বাচন করতে পারেন সেজন্য ভিডিও গেম এর রেটিং করে থাকে Entertainment Software Rating Board (ESRB)। এটি ১৯৯৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে প্রতিষ্ঠিত হয়। বয়সের উপর ভিত্তি করে গেম গুলোকে সাধারণত ৮ ধরণের রেটিং দেওয়া হয়ে থাকে। রেটিং গুলো হলোঃ RP, EC, E, E10+, T, M এবং AO। নিম্নে চিহ্নগুলো এবং এদের অর্থ দেওয়া হলোঃ

চিহ্ন অর্থ
সাধারণত কোনো গেমের প্রোমোশনাল ম্যাটেরিয়ালকে এই রেটিং দিয়া রাখা হয়। এর অর্থ হচ্ছে ফাইনাল রেটিং টি এখনো পেন্ডিং রয়েছে।
একদমই বাচ্চাদের জন্য তৈরী করা গেম গুলোতে এই রেটিং দেওয়া হয়। ২০১৮ পর্যন্ত এই রেটিং কার্যকর ছিল। ২০১৮ এর পর এ জাতীয় গেম গুলো E রেটিং এর মধ্যে নিয়ে আনা হয়।
যেসব গেম সব বয়সের মানুষদের জন্য উপযুক্ত সেগুলোকে E রেটিং দিয়ে দেওয়া হয়। এ ধরণের গেমে সামান্য কার্টুন ভায়োলেন্স দেখতে পাওয়া যায়।
এই রেটিং পাওয়া গেম গুলো মূলত ১০ বছর বয়স বা তার চেয়ে বেশি বয়সের সবার জন্য উপযুক্ত।
১৩ বছর বা তদুর্ধ বয়সীদের জন্য উপযুক্ত গেম গুলোকে T রেটিং দেওয়া হইয়ে থাকে। এ ধরণের গেমে মডারেট লেভেলের ভায়োলেন্স, রক্তপাত, সেক্সুয়াল কন্টেন্ট, মডারেট ল্যাংগুয়েজ ও ডার্ক হিউমার থাকে।
১৭ বছর বা তদুর্ধদের জন্য উপযুক্ত গেমগুলোতে এই রেটিং দেয়া হয়। এই রেটিং পাওয়া গেম গুলোতে গ্রাফিক ভায়োলেন্স, স্ট্রং সেক্সুয়াল থিম ও স্ট্রং ল্যাংগুয়েজ থাকে।
এধরনের কন্টেন্ট গুলো সম্পূর্ণরূপে এডাল্টদের জন্য তৈরী।

এবার আসা যাক ঘটনা ৩ এ। টিভির কন্টেন্ট গুলোর রেটিং দিয়ে থাকে TV Parental Guidelines। ১৯৬৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। এরা টিভি কন্টেন্ট গুলোকে ৬ ধরণের রেটিং দিয়ে থাকে। TV Y, TV Y7, TV G, TV PG, TV 14, TV MA।

টিভি কন্টেন্টের রেটিংসমূহ ; ছবিসূত্রঃ bannedart.umwblogs.org
চিহ্ন অর্থ
৭ বছরের কম বয়সী বাচ্চাদের জন্য বানানো শো গুলোকে এই রেটিং দেওয়া হয়।
৭ বা তদুর্দ্ধ বছর বয়সী বাচ্চাদের জন্য বানানো শো গুলোকে Y7 রেটিং দেওয়া হয়।
এই রেটিং পাওয়া শো গুলো সব ধরণের বয়সের অডিয়েন্সের জন্য উপযুক্ত হয়ে থাকে।
Parental Guidance প্রয়োজন এমন শো গুলোতে এই রেটিং দেওয়া হয়। অর্থাৎ এই শো গুলো শিশুদের জন্য উপযুক্ত নয়।
এই রেটিং প্রাপ্ত শো গুলো সাধারণত ১৪ বছর বা তদুর্দ্ধ বছর বয়সীদের জন্য উপযুক্ত। এতে ডার্ক হিউমার, এলকোহলের ব্যবহার, ভায়োলেন্স এবং অনেক ক্ষেত্রে স্ট্রং ল্যাংগুয়েজ ব্যবহার করা হয়ে থাকে।
এডাল্ট এবং ম্যাচিউরড অডিয়েন্সের জন্য উপযুক্ত শো গুলোতে এই রেটিং দেওয়া হয়ে থাকে।

অনুপ্রানিত – 

    • MPA Ratings:  https://en.wikipedia.org/wiki/Motion_Picture_Association_film_rating_system
    • ESRB Ratings:    https://en.wikipedia.org/wiki/Entertainment_Software_Rating_Board
    • TV Parental Guidlines Ratings:   https://en.wikipedia.org/wiki/TV_Parental_Guidelines

Meet The Amazing Writer

Dibya Kanti Basak

About Writer: I’m currently a university student. I love messing around with tech and music.

Follow the Amazing Writer

Leave a Reply