বিটা থ্যালাসেমিয়া মাইনর ও সামাজিক অপবাদ ভীতি

বিটা থ্যালাসেমিয়া মাইনর ও সামাজিক অপবাদ ভীতি

প্রথমেই বলে নেই, থ্যালাসেমিয়া জিনিসটি কি! এটি একটি বংশগত রোগ যাকে সহজ ভাষায় এক প্রকার রক্তস্বল্পতা বলা যায়। এই রোগটিকে তিনটি ধরনে ভাগ করা হয়ে থাকে। থ্যালাসেমিয়া মাইনর, থ্যালাসেমিয়া ইন্টারমিডিয়া ও থ্যালাসেমিয়া মেজর। আজ আমি থ্যালাসেমিয়া মাইনর নিয়ে কিছু কথা বলতে চাই। 

থ্যালাসেমিয়া মাইনরের রোগীকে থ্যালাসেমিয়া বাহকও বলা হয়। এদের বেশির ভাগেরই কোন লক্ষণ থাকে না তবে কিছু মানুষের সামান্য রক্তস্বল্পতা দেখা দিতে পারে। থ্যালাসেমিয়ার বাহক তার পরবর্তী প্রজন্মে এই রোগটি হস্তান্তর করে থাকেন। যদি একজন বাহক অপর একজন বাহককে বিয়ে করেন তবে প্রত্যেক প্রেগন্যান্সিতে শতকরা পঁচিশ ভাগ তাদের সন্তানের থ্যালাসেমিয়া মেজর হাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে যা সন্তানের জীবনের জন্য হুমকিস্বরূপ ।

Beta_thal_MED_ILL_EN
ছবিসূত্রঃ AboutKidsHealth.ca

বিটা থ্যালাসেমিয়া মাইনর এর উপর প্রিম্যারিটাল স্ক্রীনিং নিয়ে ১৯৯৫ সালে তুরস্কের ডেনিজলি প্রদেশের ইজিয়ান অঞ্চলে এক গবেষণায় দেখা যায়, ১৫ টি থ্যালাসেমিয়া বাহক জোড়ার মধ্যে ৬ টি জোড়া সন্তান গর্ভাবস্থায় থাকাকালীন পরীক্ষা করিয়েছিলেন। তন্মধ্যে ১ টি বাচ্চা স্বাভাবিক, ৪ টি বাচ্চা থ্যালাসেমিয়া বাহক এবং বাকি ১ টি বাচ্চার থ্যালাসেমিয়া মেজর ধরা পড়েছিল। পরবর্তীতে যেই জোড়ার সন্তানের থ্যালাসেমিয়া মেজরের রোগী হয়ে জন্মগ্রহণ করার কথা ছিল তার গর্ভপাত ঘটিয়ে প্রেগন্যান্সির অবসান ঘটানো হয়। এই গবেষণা থেকে এই শিক্ষা নেয়া যায় যে , সন্তান থ্যালাসেমিয়া মেজর এর রোগী হিসেবে জন্মগ্রহণ করা থেকে বাধা দেয়ার জন্য প্রিম্যারিটাল স্ক্রীনিং করা অত্যাবশ্যকীয়। 

আমার লেখার উদ্দেশ্য হচ্ছে , বিয়ের পূর্বে ব্লাড টেস্টের মাধ্যমে যদি নিশ্চিত হওয়া যায় তবে পরবর্তী প্রজন্ম সুস্থ ও স্বাভাবিক জীবনের অধিকারী হতে পারবে। এক্ষেত্রে একজন বাহক অপর একজন বাহককে বিয়ে করা থেকে বিরত থাকা আমার কাছে একটি নিশ্চিত ভবিষ্যতের ভিত্তিমূল মনে হয়। যাদের এই রোগ (থ্যালাসেমিয়া মাইনর) থাকে তাদের নিজেদের জীবনের কোনো ঝুঁকি থাকেনা ।কিন্তু রোগটি নিয়ে অনেকের মাঝেই স্যোশাল স্টিগমা বা সামাজিক অপবাদ ভীতি কাজ করে। এজন্য অনেকেই সত্য গোপন করে ভবিষ্যত জীবনকে অনিশ্চয়তার মধ্যে ঠেলে দেয়। আমরা যেন সুস্থ , সুন্দর ও স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পারি সেজন্য এই মানসিকতা বা প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে প্রিম্যারিটাল স্ক্রীনিং বা বিয়ের পূর্বে রক্তপরীক্ষা করে প্রতিরোধমূলক ব্যাবস্থা নেয়া অত্যন্ত প্রয়োজন।

Meet The Amazing Writer

Mayeda Afnan Antila

About Writer: My name is Mayeda Afnan. I’m studying in Medical College for Women & Hospital. Since my childhood I’ve been fascinated by that white coat and passionate about this medical profession as it’s a very challenging job !

Follow the Amazing Writer

This Post Has 3 Comments

  1. Anonymous

    It’s really a great initiative ! ❤️

  2. Ahnaf Tahmid

    It’s informative. I have learnt many unknown things. Keep up the good works

    1. Mayeda Afnan

      ❤️❤️

Leave a Reply